টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ

টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ
টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ

টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ – টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ – ডায়াবেটিস বর্তমানে ছোট বড় সবারই দেখা দিচ্ছে। তার মধ্যে টাইপ ১ ডায়াবেটিস শিশুদের ক্ষেত্রে বেশি দেখা যায়. ডায়াবেটিস এর আরোও প্রকারভেদ রয়েছে.

সম্মানিত ভিসিটর, এই আর্টিকেল এ আমরা টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানাবো। এই আর্টিকেল থেকে আপনি জানতে পারবেন টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর খাবার, টাইপ ১ ডায়াবেটিস ট্রিটমেন্ট এবং অন্যান্য বিষয়ে।

টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ
টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় । টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ

টাইপ ১ ডায়াবেটিস কি

আমাদের সকলের টাইপ ১ ডায়াবেটিস কি তা জানতে হবে. টাইপ ১ ডায়াবেটিস কে ইংরেজিতে type 1 Diabeties নামে বলে. টাইপ ১ ডায়াবেটিস juvenile diabetes নামেও পরিচিত। এই ডায়াবেটিস বাচ্চা বা অপ্রাপ্ত বয়স্কদের বেশি হয়ে থাকে।

টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ বা টাইপ ১ ডায়াবেটিস সিম্পটমস

আপনি কি টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ কি কি তা জানেন? টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর অনেক ধরণের লক্ষণ আছে. টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ বা সিম্পটমস সমূহ তুলে ধরা হলো.
১. অতিরিক্ত তৃস্না, ২. ঘন ঘন মূত্রত্যাগ, ৩. চরম ক্ষুদা, ৪. অনিচ্ছাকৃত ওজন কমে যাওয়া। ৫. খিটখিটেভাব এবং অন্যান্য ধরণের মেজাজে পরিবর্তন, ৬. ক্লান্তি ও দুর্বলতা, ৭. চোখে ঝাপসা দেখা। অন্যান্য রোগের লক্ষণ ডায়াবেটিস এর ক্ষেত্রে ও দেখা যায়.

টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় ?

আমাদের দেশের মানুষ সাধারণত সচেতন না. অধিকাংশ মানুষ জানে না টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয়. তবে টাইপ ১ ডায়াবেটিস হওয়ার নির্দিষ্ট কোন কারণ জানা যায় নি. আমরা সাধারণত জানি বংশগত বা পরিবেশগত কারণে এই রোগ হতে পারে। মানুষের শরীরে অগ্ন্যাশয় থেকে যখন খুব সামান্য ইনসুলিন উৎপাদন হয় বা কোন ইনসুলিন উৎপন্ন হয় না তখন ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ হয়. তবে টাইপ ১ ডায়বেটিস অটোইমিউন প্রতিক্রিয়ার কারণে হয়. অটোইমিউন প্রতিক্রিয়া ইনসুলিন ক্ষরণ করতে বাধা প্রদান করে কোষগুলো ধ্বংস করে.

টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর চিকিৎসা বা টাইপ ১ ডায়াবেটিস ট্রিটমেন্ট

আমাদের সকলেরই টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর চিকিৎসা বা টাইপ ১ ডায়াবেটিস ট্রিটমেন্ট সম্পর্কে জানা উচিত। সকলের সচেতন হয়ে রক্ত পরীক্ষা করে ডায়াবেটিস আছে কিনা দেখতে হবে. টাইপ ১ ডায়াবেটিস হলে তেমন কোন লক্ষণ প্রকাশ পায় না। আপনার যদি টাইপ ১ ডায়াবেটিস থাকে তাহলে অবশ্যই ইনসুলিন গ্রহণ করবেন। টাইপ ১ ডায়াবেটিস রোগীর রক্তের শর্করার পরিমান রাখতে ইনসুলিন দিতে হবে.

এছাড়াও আপনার শরীরে টাইপ ১ ডায়াবেটিস হলে খাবার এবং জীবনযাত্রার প্রতি খেয়াল রাখতে হবে. সুষম এবং স্বাস্থ্যকর ডায়েট মেনে খেতে হবে. খাবারের সময় মেনে চলতে হবে.

প্রতিদিন আপনি শারীরিক ব্যায়াম করবেন। শারীরিক ব্যায়াম করলে টাইপ ১ ডায়াবেটিস রোগীর শরীরে রক্তের শর্করার মাত্রা সঠিক রাখতে সহায়তা করে.

টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর খাবার

ডায়াবেটিস রোগ সম্পূর্ণ নিরাময় করা যায় না. আপনি যদি কিছু নিয়ম কানুন এবং খাবার পদ্ধতি মেনে চলেন তাহলে টাইপ ১ ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর খাবার তালিকায় অনেক ধরণের ফল রয়েছে। যেমন খেজরে প্রচুর পরিমানে ফাইবারযুক্ত থাকে যা ডায়াবেটিস এর জন্য উপকারে আসে. তিসি বীজে ফাইবার, ওমেগা ৩ ও ওমেগা ৬, ফ্যাটি এসিডের ভালো উৎস. এছাড়াও আপনি দুধ, তুলসী, মটরশুঁটি, মেথি খেতে পারেন।

টাইপ ১ ডায়াবেটিস ওষুধ: যাদের টাইপ ১ ডায়াবেটিস হয়েছে তারা টাইপ ১ ডায়াবেটিসের ঔষধ সম্পর্কে জানতে চান. এখন পর্যন্ত টাইপ ১ ডায়াবেটিস রোগের নিরাময় বা প্রতিকার আবিষ্কার হয় নাই. আপনার যদি এই রোগ হয়ে থাকে তাহলে নিয়মিত ইনসুলিন নিতে হবে. আপনি ইনজেকশনের মাধ্যমে বা ইনসুলিন পাম্পের মাধ্যমে শরীরে ইনসুলিন নিতে পারেন।

সম্মানিত ভিসিটর, আশা করি এই আর্টিকেল থেকে আপনি টাইপ ১ ডায়াবেটিস কেন হয় এবং টাইপ ১ ডায়াবেটিস এর লক্ষণ সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।