Home » বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ | BKash Merchant Account Charge
বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ | BKash Merchant Account Charge

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ | BKash Merchant Account Charge – বিকাশ বাংলাদেশের মোবাইল ব্যাংকিং এর ক্ষেত্রে অগ্রনী ভূমিকা পালন করে আসছে। বিকাশে আপনার সুবিধা অনু্যায়ী একাউন্ট খুলতে পারেন। বিকাশে পারসোনাল ও মার্চেন্ট একাউন্ট খোলা যায়। আপনি আপনার ইচ্ছামত খুলতে পারেন। তবে আপনি যদি বিকাশের মার্চেন্ট একাউন্ট খোলেন তাহলে পার্সোনাল একাউন্টের চেয়ে বেশি সুযোগ সুবিধা পাবেন। আপনি যদি ব্যবসা বানিজ্যের উদ্দেশ্যে বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলা ভালো হবে।

সম্মানিত ভিজিটর, ইনফো বিডি অনলাইন এর পক্ষ থেকে আমি আপনাদের জানাবো বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম, বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট , বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট সুবিধা , মার্চেন্ট নাম্বার কি , বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট টাকা পাঠানোর নিয়ম , বিকাশ মার্চেন্ট কমিশন , বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাকাউন্ট লিমিট ইত্যাদি বিষয়।

আরোও পড়ুনঃ আমেরিকা থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর নিয়ম – মাত্র ৫ সেকেন্ডে

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম

এখন আমি আপনাদের জানাবো বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম। বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে বিকাশ এর ওয়েবসাইটে যেতে হবে। বিকাশের ওয়েবসাইটে যেতে এই লিংক এ ক্লিক করে প্রবেশ করুন। প্রবেশ করার পর এজেন্ট ও মার্চেন্ট দুইটি অপশন পাবেন। মার্চেন্ট অপশনে ক্লিক করলে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য প্রেরনের একটি ফরম আসবে। এখানে আপনার সকল তথ্য প্রদান করে সাবমিট করলে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট তৈরী হয়ে যাবে। এরপর থেকে আপনি বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর সুবিধা গুলো পাবেন।

অন্য আর্টিকেল পড়ুনঃ বিদেশ থেকে ইসলামী ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ

আপনি যখন বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করবেন তখন পার্সোনাল একাউন্ট এর থেকে বেশী সুযোগ সুবিধা পাবেন। বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট এর চেয়ে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ কম। যেমন বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট এর ক্যাশ আউট চার্জ ১.৮৫% কিন্তু বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর চার্জ ১.৭০%।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট

বিকাশের মোবাইল ব্যাংকিং এ বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট হচ্ছে আপনি এই একাউন্ট এর মাধ্যমে আপনার কাস্টমার এর থেকে টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট সুবিধা

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট সুবিধা একটু বেশি। আপনি বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট এর মাধ্যমে কম চার্জ এ টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট টাকা পাঠানোর নিয়ম

বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট ও বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট টাকা পাঠানোর নিয়ম একই। তবে আপনি যদি কোন কিছু ক্রয় করে বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্টে টাকা পাঠান তাহলে আপনার অতিরিক্ত কোন চার্জ কাটবে না। কিন্তু পার্সোনাল একাউন্টে টাকা পাঠালে অতিরিক্ত টাকা চার্জ করে থাকে।

বিকাশ মার্চেন্ট কমিশন

বিকাশের পার্সোনাল একাউন্ট কমিশন শতকরা ১.৮৫ টাকা এবং বিকাশ মার্চেন্ট কমিশন ১.৭০ টাকা।

বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাকাউন্ট লিমিট বা একাউন্ট লিমিট

বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট লিমিট নাই। আপনি যদি বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট ব্যবহার করে থাকেন তাহলে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে লিমিট থাকে কিন্তু বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাকাউন্ট লিমিট নাই যত খুশি টাকা প্রতিদিন লেনদেন করতে পারবেন।

মার্চেন্ট নাম্বার কি ?

উত্তরঃ আপনি বিকাশের মার্চেন্ট একাউন্ট যে মোবাইল নাম্বার দিয়ে খুলবেন সেটিই আপনার মার্চেন্ট নাম্বার।

সম্মানিত ভিজিটর, আশা করি আপনি বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম, বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট ক্যাশ আউট চার্জ -BKash Merchant Account Charge , বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট , বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট সুবিধা , মার্চেন্ট নাম্বার কি , বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট টাকা পাঠানোর নিয়ম , বিকাশ মার্চেন্ট কমিশন , বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাকাউন্ট লিমিট ইত্যাদি বিষয়ে বুঝতে পেরেছেন।

অন্য পোস্ট পড়ুনঃ বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নারায়ণগঞ্জ | Bkash Customer Care Narayanganj

Share This Article With Your Friends !